মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৮:১৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ধারাবাহিক আল কোরআন : সূরা আল বাকারা, আয়াত ২০৪, বাংলা তরজমা ও তাফসির ! জেনে নিন কেন মুসলমানদের নিকট মসজিদুল আকসা এতোটা গুরুত্বপূর্ণ? মহামারি করোনা ভাইরাস কাউকেই ছাড় দেয় না : ওবায়দুল কাদের! দেশবাসী’কে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের ! The Social Dimension Of Globalization Situationen Ich Gelernt ( Bis jetzt ) Von Mein Neu Union নওগাঁ সাপাহারে যায়যায়দিন পত্রিকার বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠিত! চাঁদপুরে মুরগি,র খামারে নিয়ে ধর্ষণ, শিশুকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার! দুপচাঁচিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের কেক কর্তন দলের ৭২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে। কাহালু ইসলামী ব্যাংকে অনুষ্ঠিত হলো মানিলন্ডারিং এন্ড একাউন্ট ওপেনিং আপডেট প্রশিক্ষন কর্মশালা। রাজশাহীতে প্রেমের ফাঁদে ফেলে কিশোরীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, ৩ তরুণ গ্রেপ্তার! বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক স্কুল ছাত্রের মৃত্যু! তালোড়া ইউপি নির্বাচন উপলক্ষ্যে ওসি দুপচাচিয়ার মতবিনিময়! দুপচাঁচিয়াতে উপজেলা আওয়ামীলীগের আনন্দ র‍্যালী।

বরিশালে শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে এসে স্ত্রীকে হত্যা, সেফটি’ক ট্যাংকে ফেললেন মরদেহ!

জেলা প্রতিনিধি
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১ জুন, ২০২১
  • ১৯৩ Time View

জেলার গৌরনদী উপজেলা’য় শ্বশুরবাড়িতে স্ত্রীকে বেড়াতে নিয়ে এসে হত্যা’র পর মরদেহ সেফটি’ক ট্যাংকে ফেলে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। আটকের পর পরিচ্ছন্নতা কর্মী সাকিব হোসেন তার স্ত্রী নাজনীন আক্তার’কে হত্যা’র কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন।

নিহত নাজনীন আক্তার বগুড়া সদরে’র সাবগ্রাম (উত্তরপাড়া) এলাকার মো. আব্দুল লতিফে’র মেয়ে। আটক সাকিব হোসেন গৌরনদী’র বাটাজোর ইউনিয়নে’র হরহর গ্রামে’র আব্দুল করিম আকন্দে’র ছেলে। আড়াই বছর আগে বগুড়া জাহাঙ্গীরাবাদ সেনানিবাসে পরিচ্ছন্নতা কর্মী হিসেবে চাকরি পান। সেই সুবাদে তিনি বগুড়া’য় থাকতেন।

ঘাতক সাকিব পুলিশ’কে জানান, শ্বাসরোধে হত্যা’র পর গৌরনদীর বাটাজোর ইউপির হরহর গ্রামে’র তার বাবার ঘরের পাশে সেফটি’ক ট্যাংকে স্ত্রী নাজনীন আক্তারে’র মরদেহ ফেলে দেন।

পরে সাকিবে’র কথার সূত্র ধরে গত মঙ্গলবার সকাল থেকে সেফটি’ক ট্যাংকসহ আশপাশের এলাকায় তল্লাশি শুরু করে বগুড়া সদর থানা পুলিশে’র একটি দল। তবে দুপুর একটা পর্যন্ত নাজনীন আক্তারে’র মৃতদেহে’র সন্ধান মেলেনি। তবে সেপটি’ক ট্যাংকে’র ভেতর থেকে নাজনীন আক্তারে’র ওড়না ও শরীরে’র চামড়া’র কিছু অংশ পাওয়া গেছে।

আরও পড়ুন নাটোরে ধর্ষণের ভিডিও ভাইরালে’র হুমকি দিয়ে গণধর্ষণ, আটক ৪ জন!

নাজনীন আক্তার গত ২৪ই মে থেকে নিখোঁজ ছিলেন। এ ঘটনা’য় গত ২৬ই মে বাবা আব্দুল লতিফ বগুড়া সদর থানায় একটি জিডি করেন। বিষয়’টি জানতে পেরে সেনানিবাস কর্তৃপক্ষ গতকাল সোমবার সাকিব হোসেন’কে পুলিশে সোপর্দ করে।

জিডি সূত্রে জানা গেছে, ২০২০ সালের ৩০ই সেপ্টেম্বর সাকিব হোসেনে’র সঙ্গে নাজনীন আক্তারে’র বিয়ে হয়। তবে বিয়ে’র পর নাজনীন তার বাবা মায়ের সঙ্গে থাকতেন। সাকিব গত ২৪ই মে স্ত্রী নাজনী’কে ফোন দিয়ে বলেন, তার বাবা খুবই অসুস্থ। অসুস্থ বাবা’কে দেখতে নাজনীন’কে তার গৌরনদী’র বাটাজোর ইউপি’র হরহর গ্রামে যেতে হবে। সাকিব নাজনীন’কে গোদাপাড়া চারমাথা বাসস্ট্যান্ডে দ্রুত আসতে বলেন। নাজনীন বাসে করে গৌরনদী’র উদ্দেশ্যে রওনা হন। এরপর নাজনীনে’র সঙ্গে আর তার বাবা মায়ের যোগাযোগ হয়নি।

পরবর্তী”তে বাবা মা নাজনীন ও সাকিবে’র নম্বরে কল করলে দু’টি নম্বরই বন্ধ পাওয়া যায়। এ ঘটনা উল্লেখ করে আব্দুল লতিফ থানায় জিডি করেন।

তদন্ত কর্মকর্তা বগুড়া সদর থানার এসআই মো. গোলাম মোস্তফা জানান, নাজনীন নিখোঁজে’র ব্যাপারে খোঁজ নিতে গত সোমবার সাকিব হোসেন’কে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। সাকিব এসময় পুলিশ’কে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করেন। এরপর আটক করে থানায় নিয়ে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে বলেন, বাবার অসুস্থতা:র মিথ্যা কথা বলে গত ২৪ই মে নাজনীন’কে নিয়ে তিনি বাবার বাড়ি গৌরনদীর বাটাজোর ইউনিয়নে’র হরহর গ্রামে আসেন।

তার বাবা আব্দুল করিম পেশায় ভ্যানচালক। আর্থিক অবস্থা খুবই নাজুক। এসব কথা গোপন করে সাকিব নিজেদে’র অবস্থা সম্পন্ন পরিবারের ছেলে পরিচয় দিয়ে নাজনীন’কে বিয়ে করেছিলেন। সাকিবে’র কাছে নাজনীন এসব কথা গোপন করার কারণ জানতে চানতে চান। এসময় তাদের মধ্যে ঝগড়া বেধে যায়। একপর্যায়ে রাগে নাজনীন সাকিব’কে ভিক্ষুকে’র ছেলে বলে গাল দেন। সাকিব এতে ক্ষিপ্ত হয়ে নাজনীনে’র গলায় রশি লাগিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন। এরপর বাবা মায়ের সহায়তায় ঘরের পেছনে থাকা সেপটি’ক ট্যাংকে স্ত্রী নাজনীন আক্তারে’র মৃতদেহ ফেলে দিয়ে বগুড়া ফিরে গিয়ে কর্মস্থলে যোগ দেন।

গৌরনদী থানার পরিদর্শক মো. তৌহিদুজ্জামান জানান, সকালে সাকিব’কে সঙ্গে নিয়ে বগুড়া সদর থানা পুলিশে’র একটি দল গৌরনদী আসে। এরপর গৌরনদী থানা পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে তারা নাজনীনে’র মরদেহ উদ্ধারে বাটাজোর ইউনিয়নে’র হরহর গ্রামে যান। আগেই এ খবর পেয়ে সাকিবে’র বাবা মা সেখান থেকে পালিয়েছেন। সকাল দশটা থেকে প্রথমে সেফটিক ট্যাংক পরিষ্কার করে তার মধ্যে তল্লাশি করা হয়। ট্যাংকে’র ভেতর থেকে নাজনীন আক্তারের ওড়না ও শরীরের চামড়ার কিছু অংশ পাওয়া গেছে। তবে পুরো মৃতদেহ সেখানে নেই। বাড়ির আশপাশে তল্লাশি অব্যাহত রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102