মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৭:৫৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ধারাবাহিক আল কোরআন : সূরা আল বাকারা, আয়াত ২০৪, বাংলা তরজমা ও তাফসির ! জেনে নিন কেন মুসলমানদের নিকট মসজিদুল আকসা এতোটা গুরুত্বপূর্ণ? মহামারি করোনা ভাইরাস কাউকেই ছাড় দেয় না : ওবায়দুল কাদের! দেশবাসী’কে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের ! The Social Dimension Of Globalization Situationen Ich Gelernt ( Bis jetzt ) Von Mein Neu Union নওগাঁ সাপাহারে যায়যায়দিন পত্রিকার বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠিত! চাঁদপুরে মুরগি,র খামারে নিয়ে ধর্ষণ, শিশুকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার! দুপচাঁচিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের কেক কর্তন দলের ৭২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে। কাহালু ইসলামী ব্যাংকে অনুষ্ঠিত হলো মানিলন্ডারিং এন্ড একাউন্ট ওপেনিং আপডেট প্রশিক্ষন কর্মশালা। রাজশাহীতে প্রেমের ফাঁদে ফেলে কিশোরীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, ৩ তরুণ গ্রেপ্তার! বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক স্কুল ছাত্রের মৃত্যু! তালোড়া ইউপি নির্বাচন উপলক্ষ্যে ওসি দুপচাচিয়ার মতবিনিময়! দুপচাঁচিয়াতে উপজেলা আওয়ামীলীগের আনন্দ র‍্যালী।

ধারাবাহিক আল কোরআন : সূরা আল বাকারা, আয়াত ১৯১, বাংলা তরজমা ও তাফসির !

ইসলামিক ডেস্ক
  • Update Time : সোমবার, ১০ মে, ২০২১
  • ২৩৪ Time View

ওয়াকতুলূহুম হাইছু ছাকিফতুমূহুম ওয়া আখরিজূহুম মিন হাইছুআখরাজূকুম ওয়াল ফিতনাতু আশাদ্দু মিনাল কাতলি ওয়ালা-তুকা-তিলূহুম ‘ইনদাল মাছজিদিল হারা-মি হাত্তা-ইউকা-তিলূকুম ফীহি ফাইন কা-তালূকুম ফাকতুলূহুম কাযা-লিকা জাঝাউল কা-ফিরীন।

বাংলায় তাফসির :: আর যেখানে পাও, তাদেরকে হত্যা কর এবং যেখান থেকে তোমাদেরকে বহিষ্কার করেছে, তোমরাও সেখান থেকে তাদেরকে বহিষ্কার কর। ফিতনা (অশান্তি, শিরক বা ধর্মদ্রোহিতা) হত্যা অপেক্ষাও গুরুতর।

[১] আর মাসজিদুল হারামের (কা’বা শরীফের) নিকট তোমরা তাদের সাথে যুদ্ধ করো না; যতক্ষণ না তারা সেখানে তোমাদের সাথে যুদ্ধ করে। যদি তারা তোমাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে, তবে তোমরা তাদের হত্যা কর।[২] এটাই তো অবিশ্বাসীদের প্রতিফল।

[১] মক্কায় মুসলিমরা যেহেতু দুর্বল ও ছড়িয়ে-ছিটিয়ে ছিল, তাই কাফেরদের সাথে যুদ্ধ করা নিষেধ ছিল। হিজরতের পর মুসলিমদের সমস্ত শক্তি মদীনায় একত্রিত হলে তাদেরকে জিহাদ করার অনুমতি দেওয়া হয়। প্রথম পর্যায়ে তিনি কেবল তাদের বিরুদ্ধেই যুদ্ধ করতেন, যারা অগ্রিম মুসলিমদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে আসত। এরপর এটাকে আরো সম্প্রসারিত করা হয় এবং মুসলিমরা প্রয়োজন অনুযায়ী কাফেরদের অঞ্চলে গিয়েও জিহাদ করেন।

কুরআন কারীমে বাড়াবাড়ি করতে নিষেধ করা হয়েছে। এই জন্য নবী করীম (সাঃ) স্বীয় সৈন্যদের তাকীদ করতেন যে, খিয়ানত ও অঙ্গীকার ভঙ্গ করো না। আঙ্গিক বিকৃতি ঘটায়ো না।

শিশু, মহিলা এবং গির্জায় উপাসনায় মগ্ন উপাসক বা পুরোহিতদেরকে হত্যা করো না। অনুরূপ বৃক্ষাদি জ্বালাবে না এবং বিনা উদ্দেশ্যে পশুদের হত্যা করবে না। (ইবনে কাসীর-মুসলিম ইত্যাদি) {حَيْثُ ثَقِفْتُمُوْهُمْ} “যেখানে পাও তাদেরকে হত্যা কর” এর অর্থ হল, যখনই তাদেরকে হত্যা করতে সক্ষম হবে, তখনই তাদেরকে হত্যা কর।

(আইসারুততাফাসীর) {مِنْ حَيْثُ أَخْرَجُوْكُم} অর্থাৎ, যেভাবে কাফেররা তোমাদেরকে মক্কা থেকে বের করেছিল, সেভাবে তোমরাও তাদেরকে মক্কা থেকে বহিষ্কার কর। তাইতো মক্কা বিজয়ের দিন যারা ইসলাম গ্রহণ করেনি, চুক্তির সময় সীমা শেষ হয়ে যাওয়ার পর তাদেরকে সেখান থেকে বের হয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। ‘ফিৎনা’র অর্থ, কুফরী ও শিরক।

এটা হত্যার চেয়েও কঠিন (বড় অপরাধ)। তাই এর মূলোৎপাটনের উদ্দেশ্যে জিহাদ থেকে বিমুখ হওয়া উচিত নয়। [২] ‘হারাম’ সীমানায় যুদ্ধ করা নিষেধ। কিন্তু কাফেররা যদি ‘হারাম’-এর মর্যাদার খেয়াল না রাখে, তাহলে তোমাদেরও তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধের অনুমতি রয়েছে।

তাদেরকে যেখানেই পাও, হত্যা কর এবং তারা তোমাদেরকে যেখান হতে বহিস্কার করেছে তোমরাও তাদেরকে সেখান হতে বহিস্কার কর এবং হত্যা অপেক্ষা অশান্তি (ফিতনা) গুরুতর এবং তোমরা তাদের সাথে পবিত্রতম মাসজিদের নিকট যুদ্ধ করনা, যে পর্যন্ত না তারা তোমাদের সাথে তন্মধ্যে যুদ্ধ করে; কিন্তু যদি তারা তোমাদের সাথে যুদ্ধ করে তাহলে তোমরাও তাদেরকে হত্যা কর; অবিশ্বাসীদের জন্য এটাই ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102